শিক্ষার্থীদের ভিসার আবেদন নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস

শিক্ষার্থীদের ভিসার আবেদন নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস । শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, এফ (অ্যাকাডেমিক ও ল্যাঙ্গুয়েজ), এম (ভোকেশনাল) ও জে (এক্সচেঞ্জ ভিজিটরস) ক্যাটাগরিতে ভিসার জন্য প্রথমবারের মত যারা আবেদন করছেন, আগামী ১৫ নভেম্বর রোববার থেকে সীমিত আকারে সেসব আবেদন গ্রহণ ও সাক্ষাতকারের জন্য সময় দেওয়া শুরু হবে।

“কোভিড-১৯ এর কারণে দূতাবাসের প্রাত্যহিক কর্মতালিকায় সাক্ষাতকারের সংখ্যা সীমিত থাকবে এবং ভিসা প্রসেস করার জন্য ছয় সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। বিষয়টি মনে রেখে আবেদনকারীদের ভিসার আবেদন ও ভ্রমণ পরিকল্পনা করতে অনুরোধ করা হচ্ছে।”

দূতাবাস জানিয়েছে, আবেদনকারীদের নির্ধারিত ওয়েবসাইটে (www.ustraveldocs.com/bd) লগ ইন করে তাদের প্রোফাইল হালনাগাদ করতে হবে এবং ভিসা ফি দেওয়ার পরে অনলাইন সাক্ষাৎকারের সময় নিতে হবে।

জমা দেওয়া আবেদন ফি (এমআরভি) নিয়মিত ভিসা সেবা কার্যক্রম পুনরায় চালু না হওয়া পর্যন্ত বৈধ থাকবে এবং এই আবেদন ফি ব্যবহার করে আগামী ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সাক্ষাত্কারের জন্য সময় নেওয়া যাবে।

ইউনেসকোর তথ্য অনুযায়ী, উচ্চ শিক্ষার জন্য বাংলাদেশ থেকে বছরে প্রায় ৭০ থেকে ৯০ হাজার শিক্ষার্থী দেশের বাইরে যান। এর বড় একটি অংশ যান যুক্তরাষ্ট্রে।

পছন্দের এলাকায় পার্টটাইম/ফুলটাইম চাকরি খুঁজে পেতে এই অ্যাপটি ইন্সটল করেএখনই আবেদন করুন

কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে ভিসা দেওয়া বন্ধ থাকায় প্রস্তুতি পর্যায়ে থাকা অনেক শিক্ষার্থী বিপাকে পড়েন। বিষয়টি নিয়ে তারা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিভেন বিগান অক্টোবরে বাংলাদেশ সফরে এলে তার কাছেও বিষয়টি তুলে ধরা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস জানিয়েছে, যেসব শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্রে লেখাপড়া করছেন, তারা একই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া চালিয়ে গেলে সাক্ষাত্কার ছাড়াই স্টুডেন্ট ভিসা নবায়নের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।

এফ২ ভিসার অধীনে স্বামী/স্ত্রী বা তাদের ২১ বছরের কম বয়সী সন্তাবের ভিসা নবায়নের আবেদনও নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ‘জীবন-মৃত্যুর মত অত্যন্ত জরুরি’ পরিস্থিতিতে আবেদনকারীদের জন্য জরুরি ভিসা কার্যক্রম সবসময়ই চালু রাখা হয়েছে বলে দূতাবাসের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

 

About Sanjida Sultana 2160 Articles
Hi, I am Sanjida Sultana. I am the founder of this site. I regularly update all kind of job information of Bangladesh. I like to update all the latest job information regularly from daily newspaper and online job posting site.