#ডিগ্রির উপবৃত্তির জন্য আবেদন করে ইতিমধ্যে যারা ভুল তথ্য দিয়েছেন তাদের তথ্য সংশোধনের জন্য করণীয়ঃ

★ ডিগ্রির উপবৃত্তির জন্য আবেদন করে ইতিমধ্যে যারা ভুল তথ্য দিয়েছেন তাদের তথ্য সংশোধনের জন্য করণীয়ঃ
👉
গুগল প্লে স্টোর থেকে “ই-স্টাইপেন্ড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম” (https://play.google.com/store/apps/details?id=com.synesisIt.pmeat) এ্যাপটি ডাউনলোড করে ইনস্টল করুন অতঃপর ওপেন করুন।
👉 user id তে ডিগ্রির রেজিষ্ট্রেশন নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে log in করতে হবে।
👉 এরপর Applied/ আবেদিত অপশনে ক্লিক করুন, ছকে আপনার সব তথ্য প্রদর্শিত হবে..তথ্য প্রয়োজনে সংশোধন করুন এবং “Save And Continue” দিয়ে চালিয়ে যান।
👉 তথ্য সংশোধন শেষ হলে “Preview Application” এ ক্লিক করবেন।
👉 উল্লেখিত ছকে সব তথ্য ঠিক থাকলে “Confirm And Apply” দিয়ে “Okay” বাটনে ক্লিক করবেন! অতঃপর কাজ শেষ। তথ্য সংশোধিত হয়ে যাবে। এরপর,যেকোনো ব্রাউজার / ডেস্কটপ থেকে নিন্মলিখিত নিয়মে আবেদনের প্রিন্ট কপি ডাউনলোড করে দিতে নিতে পারবেন! প্রিন্ট কপিতে সংশোধিত তথ্য প্রদর্শিত হবে।
★ অনলাইনে আবেদন করে পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে করণীয়ঃ
👉 গুগল প্লে স্টোর থেকে “ই-স্টাইপেন্ড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম” (https://play.google.com/store/apps/details?id=com.synesisIt.pmeat) এ্যাপটি ডাউনলোড করে ইনস্টল করুন অতঃপর ওপেন করুন।
👉 “Forgot Password” এ ক্লিক করুন।
👉 “User id” তে ডিগ্রির রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার দিয়ে Submit করুন
👉 এরপর “New Password” ও “Confirm New Password” এ নতুন পাসওয়ার্ড বসিয়ে “Submit” দিন। পাসওয়ার্ড চেঞ্জ হয়ে যাবে।
★ প্রিন্ট কপিতে ১০ ডিজিটের সংখ্যা প্রদর্শিত হলে কি করবো?
👉 এটা সার্ভারের সমস্যা! অনলাইন প্রোফাইলে ঠিকই আছে! শুধু প্রিন্ট কপিতে ১ টা সংখ্যা কম প্রর্দশিত হচ্ছে! তাই ১ টা সংখ্যা প্রিন্ট কপিতে হাতে লিখে কলেজে জমা দিবেন।
★ জন্মতারিখ সঠিক দেওয়ার পরও ভুল আসছে- করনীয় কি?
👉 উপরোক্ত নিয়মে App দিয়ে সংশোধন করবেন। প্রয়োজনে প্রিন্ট কপি জমা দেওয়ার সময় দায়িত্বরত শিক্ষককে বিষয়টি জানাবেন।
★ প্রিন্ট কপি ডাউনলোড করতে গিয়ে. Json ফাইল আসতেছে করনীয়?
👉 সেক্ষেত্রে সার্ভারে প্রিন্ট কপি আপলোড হয়নি! অপেক্ষা করেন কাল পরশু ডাউনলোড করতে পারবেন।
★ আবেদন করার পর প্রিন্ট কপি যেভাবে পাবেনঃ
👉 নির্ধারিত website-এ ( http://estipend.pmeat.gov.bd/#/ ) যেয়ে শিক্ষার্থীর সাইন ইন অপশনে ডিগ্রির রেজিষ্ট্রেশন ও পাসওয়ার্ড দিয়ে প্রবেশ করতে হবে।
👉 এরপর প্রদর্শিত তথ্য ছকের ডানদিনে প্রোফাইল অপশনে ক্লিক করতে হবে।
👉 এরপর শিক্ষার্থীর আবেদনের তথ্য প্রদর্শিত হবে। ডানদিকে “ এপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন” অপশন থেকে পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
উক্ত পিডিএফ ফাইলটি যেকোনো কম্পিউটার দোকান থেকে প্রিন্ট করে বের করে নিতে পারবেন।
#উল্লেখ্য,অনলাইনে আবেদন করে প্রিন্ট কপি বের করার পর,উক্ত প্রিন্ট কপিসহ কলেজ নির্দেশিত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, কলেজ নোটিশের নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে কলেজে জমা দিতে হবে।ইতিমধ্যে বেশ কিছু কলেজের নোটিশ দেওয়া হয়েছে। যেসব কলেজে নোটিশ দেওয়া হয়নি, অপেক্ষা করুন এবং কলেজের সাথে যোগাযোগ রাখুন।
⚠ অনলাইনে আবেদন করার শেষ সময় ১৫ সেপ্টেম্বর ⚠
★ কীভাবে আবেদন করতে হয় তার ভিডিও টিউটোরিয়াল লিংকঃ https://youtu.be/V4Par0OtIt4
★ আবেদন করার ওয়েবসাইট লিংকঃ http://estipend.pmeat.gov.bd
#এক_নজরে_অনলাইনে_আবেদন_করতে_যা_যা_লাগবেঃ
১. শিক্ষার্থী এইচএসসি রেজিষ্ট্রেশন ও রোল নাম্বার;
২. ডিগ্রির রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার;
৩. শিক্ষার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর ও জন্ম নিবন্ধন নিবন্ধনের নম্বর;
৪. অভিভাবকের জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর;
৫. পাসপোর্ট সাইজের এক কপি ছবি;
৬. শিক্ষার্থীর ব্যাংকের নাম ও একাউন্ট নম্বার।
(উল্লেখ্য,ব্যাংক একাউন্টের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থী যেকোনো ব্যাংক একাউন্ট নম্বর ব্যবহার করতে পারবেন! কোনো শিক্ষার্থীর ব্যাংক একাউন্ট না থাকলে মোবাইল ব্যাংকিং সিলেক্ট করে (শুধুমাত্র #বিকাশ,#রকেট) একাউন্ট নম্বর দিয়ে আবেদন করতে পারবেন)
#কলেজে_আবেদন_জমাদানের_সময়_যা_যা_লাগতে_পারেঃ
১. ডিগ্রির রেজিষ্ট্রেশন কার্ডের ফটোকপি;
২. সর্বশেষ পরীক্ষার মার্কসিটের কপি;
৩. এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি;
৪. শিক্ষার্থীর জন্ম নিবন্ধন ও জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি;
৫. অনলাইনে আবেদন করা প্রিন্ট কপি।
★ শর্তাবলীঃ
১. উপবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীর অভিভাবকের বার্ষিক আয় মোট ১,০০,০০০/- (এক লক্ষ) টাকার কম হতে হবে।
২. অভিভাবক/পিতামাতার মোট জমির পরিমাণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বসবাসকারী ০.০৫ শতাংশ, পৌরসভা এলাকায় ০.২০ শতাংশ এবং অন্যান্য এলাকায় ০.৭৫ শতাংশের কম থাকতে হবে।
★ জেনে রাখুনঃ
👉 যাদের নিবন্ধন করার সময় “Error! Not Eligible! Annual Income more than 100000” লিখাটি আসবে,তারা উপবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন নাহ! কারণ ডিগ্রির ভর্তির সময় অভিভাবকের বার্ষিক আয় ১ লক্ষ টাকার বেশি দিয়েছিলেন তাই!
👉 শুধুমাত্র ডিগ্রি ১ম বর্ষ(২০১৮-১৯),(২য় বর্ষ ২০১৭-১৮) এবং (৩য় বর্ষ ২০১৬-১৭) শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন! অর্নাসের কোনো শিক্ষার্থী উপবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন নাহ।
👉 ১,২,৩ বা ৪ সাবজেক্ট F প্রাপ্ত শিক্ষার্থীও আবেদন করতে পারবেন।
👉 Not promoted প্রাপ্ত কোনো শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবে নাহ।
👉 ডিগ্রি প্রাইভেট(কোর্স) শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন নাহ।
👉 ইতিপূর্বে উক্ত সেশনের ডিগ্রি (পাস) পর্যায়ে উপবৃত্তির অর্থ পেয়েছে তাদেরকেও পুনরায় অনলাইনে আবেদন করতে হবে।
***উপবৃত্তি সংক্রান্ত যেকোনো আপডেট পেতে গ্রুপের সাথেই থাকুন***
 
 
 

পছন্দের এলাকায় পার্টটাইম/ফুলটাইম চাকরি খুঁজে পেতে এই অ্যাপটি ইন্সটল করেএখনই আবেদন করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

পছন্দের এলাকায় পার্টটাইম/ফুলটাইম চাকরি খুঁজে পেতে এই অ্যাপটি ইন্সটল করে এখনই আবেদন করুন