জানুয়ারি মাসে অনার্স চতুর্থ বর্ষের স্থগিত পরীক্ষা : উপাচার্য

মাঝপথে থেমে যাওয়া জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোর স্নাতকের (সম্মান) অবশিষ্ট পরীক্ষাগুলো আগামী জানুয়ারিতে নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে কর্তৃপক্ষ। চলমান করোনা পরিস্থিতির অবনতি না হলে মধ্য জানুয়ারির পরে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে পরীক্ষার সময়সূচী তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্যমতে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং এর অধিভুক্ত বিভিন্ন কলেজের ফাইনাল ইয়ারের ২ লাখ ২৫ হাজার শিক্ষার্থী ফাইনাল পরীক্ষা শেষ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন। চলতি বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের আগ পর্যন্ত মোটা দাগে পাঁচটি বিষয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলেও করোনার কারণে পরীক্ষা স্থগিত হয়ে যায়। এই অবস্থায় চাকরিসহ নানা প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের কথা চিন্তা করে অবশিষ্ট পরীক্ষা নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় বলেন, আগামী জানুয়ারি মাসে অনার্স চতুর্থ বর্ষের স্থগিত পরীক্ষা আয়োজনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে আমরা পরীক্ষার সময়সূচী তৈরির কাজ শেষ করে ফেলেছি। সারা দেশের বিভিন্ন কেন্দ্রে পরীক্ষা আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে। করোনা পরিস্থিতির অবনতি না হলে জানুয়ারি মাস থেকেই পরীক্ষা শুরু হবে।

প্রসঙ্গত, করোনার কারণে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন স্নাতকের (সম্মান) চূড়ান্ত পর্বের দুই লাখ ২৫ হাজার পরীক্ষার্থী। মোট ৩১টি বিষয়ে স্নাতকের (সম্মান) চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হয়েছিল গত ১৭ মার্চ সাধারণ ছুটি ঘোষণার আগে। চূড়ান্ত পর্বে মোট আটটি তত্ত্বীয় পরীক্ষা হয়। এর মধ্যে মোটাদাগে পাঁচটি বিষয়ের পরীক্ষা করোনা বন্ধের আগেই শেষ হয়েছিল।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *